Skip to content

Tag: Poetry

TASTE OF RAINBOW – Sanchari Sengupta – Kothabriksha

TASTE OF RAINBOW – Sanchari Sengupta – Kothabriksha Following a downpour – Valiant Violet peeps out, breaking the raincloudIdealistic Indigo shines out aloudBrimming Blue spreads…

এক ফাগুনের গান – অনুরাগ দত্ত | শারদীয়া সংখ্যা

(১) শীতের বিকেল,পাঁচটা বাজে,সন্ধ্যে হয়ে আসেতোমায় আমায় দেখা হলো কলেজ গেটের পাশে“অমৃতা না?” ডাকলে তুমি,তাকাই আমি ফিরেঅন্ধকারে মুখ ঢেকে যায়,বললে তুমি,”কিরে?চিনতে পারিস?” এগিয়ে এলে আমার…

দুটি কবিতা – দীপঙ্কর চন্দ

১ শিরায় শিরায় ভালোবাসা দাসখতআবহমান কাল থেকে যে বয়-ছেটে ফেলে সব স্বাধীন পাখনাকোন প্রলোভন করে নিলো জয়!ধূলিকণা সেও বাতাস পেলে ওড়ে,প্রেমের পায়ে জমা শর্তের স্তূপ,নিঃশব্দে…

দুটি কবিতা – উপেক্ষিতা

(এক) মন,তোর ঠিকানা টা দিবি?যাবো একদিন তোর বাড়ি।বসতে দিস দু’দণ্ড,কথা দিলাম;জ্বালাবো না বেশিক্ষণ।কথা দিলাম;একটি বারের জন্যও জিজ্ঞাসা করবো না…কেমন আছিস মন?কষ্ট পাস আজও?জানি প্রশ্ন গুলো…

দুটি কবিতা – রূপক বর্ধন রায়

ধর্ষক যতবার যুদ্ধ বুকে, প্রেমকে খোঁজোনি,হেসেছে ইতিহাস, তোমার পৌরুষ মানেনি।মৃত্যুর দোহাই দাও, ধর্ম-জাতেস্বভাবে ঘৃণাই খাও, অভাব ভাতের।তুমি তো রক্ত ঘাটো ভাবাদর্শ বুঝে,যে শেয়াল কাটে দেহ, সেও খাদ্য খোঁজে।ভেবেছ, পুরুষ তাই দেশ ধর্ম আগেমানুষী অশুচী, তাই ঘৃণা তার ভাগে।যাকে কাটো, ভগ্নপ্রায় নারী বা পুরুষ,শরীরে আলাদা শুধু, মননে মানুষ;যে তুমি নারী দেহে শত ক্ষত আঁকতে পারো,আছে দ্বেষ, ধর্ম দেশ নেই জেনো তোমারো।যে পুরুষ পিতৃতন্ত্রে নীরব দর্শকমুখোশে মানুষ সে, মননে ধর্ষক। শেষ মহীরূহ অন্তিম গাছটা;  অনন্ত মরুদ্যান রূখে দাঁড়িয়ে আছে ;বুড়িয়েছে কবিতার শহর, প্রাচীন অরণ্য ফুরিয়েছে।কবিতার আকাশেও মেঘ নেই, চড়ে শুধু ধোয়া;শেষ কবিতারও তাই শেষ গাছে এই চিঠি দেওয়া। হে মহীরূহ;তোমার  প্রশাখা জুড়ে যে প্রাণেরা বাসা বেধে ছিল,তোমার ছায়ায় শুয়ে যে কবিরা রাত্রি জেগেছে,তোমার শেকড় জুড়ে যে ধরণী প্রসবিনী হলতাদের দোহাই তুমি থামাও এ অন্তর্জলী,তাদের জন্য ফের কবিতাকে ভরো গাছে গাছে!এ পৃথিবী কবিতার, সবুজের, মানুষ তো অনুজীবী,অপত্য, অপক্ক মনে, বীজ বোনে শুধু  ক্ষমতার।তুমি তো আকাশমনা, বাৎসল্যে মেনে নাও সবই ,ওরা বোঝেনি শেষের কথা, বৃক্ষ-কবিতা সমতার।রুক্ষ কুঠারাঘাতে,  এক একটা যুদ্ধ মেয়াদে,কেড়েছে তোমার বন, পুড়িয়েছে নিজ নিজ গৃ্‌হ,মানুষ পূর্ণতা পাক; ভালবাসা, প্রেম, অনুভবে;শাসনে শুদ্ধ কর,  বেঁচে ওঠো শেষ মহীরুহ । 

দুটি কবিতা – সৌরসেনী চক্রবর্তী

‘দেশের নাম ইউটোপিয়া’ পৃথিবীর প্রান্তে প্রান্তরে সবুজের অভিলাষ,আকাশে নীলে হঠাৎ শরতের ইউটোপিয়ান গল্প;জানলার শার্সির প্রতিবিম্বরাআয়নার কাকচক্ষুর মত স্বচ্ছ;চিমনির কয়লার গুঁড়োতাকে কালচে ছোপের অনুশোচনা মাখায়নি।সে হলও…

কয়েকটি কবিতা-রূপক বর্ধন রয়

বান্ধবীমন স্বাধীন নামে ডাকতো সবাই,ডাকতো সবাই কালবোশেখী!যেদিন আমার আগুন যত যত্ন করে সাজিয়ে নিলি;সেদিন থেকে সবাই বলেএক বিকেলেই, কালবোশেখীর আনমনেতেই ঘরে ফেরা।সেদিন থেকে বুঝছে না…

নৈবেদ্য – এলা বসু

গাঢ় অন্ধকারে তারা অনুক্ষণ জ্বলে , জ্বলতে জ্বলতে ক্লান্তচোখে ভাবে বুঝি জ্বলার শেষ হল , এলোচুলের দুপুর ঘুমে ঈশ্বরী টুপ্ করে ডুব দেয় আধোঘুমে নিজস্ব…

সুখের ঘরে – ঐন্দ্রিলা ব্যানার্জি দে

সুখের ঘরে সীঁধ কেটেছে  অসুখ, ধুলোমাখা নরম দুটো হাত দিন পেরিয়ে রাতের কড়ানাড়া অলস কিন্তু অবাধ যাতায়াত।। ইঁট কাঠেতে ঘূণ ধরেছে বেশ চিলেকোঠায় অতীত  স্তুপাকার…

%d bloggers like this: