দুটি কবিতা – দীপঙ্কর চন্দ

শিরায় শিরায় ভালোবাসা দাসখত
আবহমান কাল থেকে যে বয়-
ছেটে ফেলে সব স্বাধীন পাখনা
কোন প্রলোভন করে নিলো জয়!
ধূলিকণা সেও বাতাস পেলে ওড়ে,
প্রেমের পায়ে জমা শর্তের স্তূপ,
নিঃশব্দে কাটাছেড়া হয় স্মৃতি
প্রগলভাও অবশেষে হয় চুপ।
চুপি চুপি সে খাঁচায় গিয়ে বসে,
আহার পানীয় বরাদ্দ করা আছে,
ভালোবাসার আফিম করেছে অবশ
পরাধীনতার সুখ নিয়ে কেউ বাঁচে॥

বিষন্নতার ঘুম ভাঙে লেপ্টে থাকা ক‍াজলে
ঘরটা কেমন ভ্যাপসা হয়ে আছে
জানলার বাইরে কয়েক ডজন মেঘ
রোজ ভিড় করে থাকে
ঝুলঝাড়ুটা দিয়ে আপ্রাণ চেষ্টা চলে
মেঘগুলোকে সরিয়ে দেওয়ার
একসময় ক্লান্ত হয়ে থামতে হয়,
গতরাতের বাসি মদের দাগ
গেলাসে আর কার্পেটে একাকার হয়ে থাকে,
শেষ চুমুর তিনটে দাগ
গলায় বুকে পাঁজরে
মিলিয়ে যাবার আগেই
সম্পর্কের লক্ আউট ঘোষণা হয়,
বন্ধ কারখানার সামনে গিয়ে দাঁড়াই –
এখানে আর কোনও ভালোবাসা তৈরি হয় না॥

Copyright © Kothabriksha 2020, All rights reserved

Leave a Reply