প্রজাতন্ত্রের সংকট এবং দুটি ভারতীয় ছবি – অভীক সরকার

ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের আকাশে ঝাঁকে ঝাঁকে উড়ে বেড়াচ্ছে চিল। আশেপাশের প্রায় সব গাছের সবুজ রঙ ঢেকে দিয়ে বসে আছে শকুনেরা। আকাশের কোথাও উজ্জ্বল রঙ নেই এতটুকু। এইসব পাখিরা এখন নেমে আসতে শুরু করেছে গড়ের মাঠের দিকে। মাঠের ধারে ধারে কিছু বড় বড় গাছ। তাদের কোনও কোনওটার শাখা থেকে ঝুলে আছে মানুষের মৃতদেহ। একটা ছোটখাটো ট্রাক চলেছে…

মোহময়ী খাজুরাহো – শুভা চক্রবর্তী

খাজুরাহো  শব্দটি এসেছে খর্জুরবহ থেকে।সেদেশে ছিল খেজুরগাছের সমারোহ আর মন্দিরগাত্রে উটের স্হাপত্যকার্য এ দুইয়ের থেকে মনে করা হয় খাজুরাহো অন্চলে সে যুগে ছিল বালুময় মরুভূমি।সময়টা ৯০০ -১১০০ খ্রীঃ।এ সময় চান্দেলা রাজাদের রাজত্ব ছিল ঐ অন্চলে।ঐ দুশো বছরের রাজত্বকালে তারা ৮৫ টি মন্দির নির্মান করেছিলেন,যার মধ্যে মাত্র ২২ টি অবশিষ্ট আছে।এখানকার মন্দিরগুচ্ছ তিনটি ভাগে বিভক্ত –…

মাদুর বুনন কথা – সম্রাট ঘোষ

“একদিন গভীর রাতে চাঁদ ওঠে, গোবর নিকানো আঙিনায় মাদুর পেতে সাজু রূপাইয়ের কোলে শুয়ে রয়, তাই একসময় বাঁশির বাজনা থেমে যায়। কারণ যাকে শোনানোর জন্য রূপাই এতদিন বাঁশি বাজিয়েছে, সেই মানুষটি এখন তারই ঘরে।” পল্লীকবি জসীম উদ্দীনের আখ্যানকাব্য “নকশী কাঁথার মাঠ” রচনায় এইভাবেই মাদুরের প্রসঙ্গ উঠে আসে। তাছাড়া অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন, “বাংলার রোজকার কাজের জিনিসেও…

একা এবং একজন – অভীক সরকার

ফুটফুট করছে জ্যোৎস্না। সামান্য বাতাস। পুকুরের জলে শিহর দেয়। পূর্ণ চাঁদের মুখ কাটাকুটি হয়ে শত শত রূপোর কুচির মত ভাসে। আশেপাশে নিঝুম গাছপালা। আলো আসে আলো যায়। একটা দুধসাদা ঘোড়া ডানা মেলে এইমাত্র উড়ে গেল ওই বন থেকে। তার চলে-যাওয়া কিছু জোনাকি হয়ে ঘুরঘুর করে। এই সীমানা পেরিয়ে এলে সরু পথ পেয়ে যাই। ধুলোপায়ে উঠে…